উঁকুনের সমস্যার কারণ ও মুক্তির উপায়

গবেষণায় দেখা যায় প্রায় ৭৫% মেয়েরা উঁকুনের সমস্যাই ভোগে। এতে করে নানান রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভবনা বাড়ে। অনেকসময় এটিকে গুরত্ব না দেওয়ার জন্য পোহাতে হয় চুল পড়ার সমস্যা।

উঁকুনের সমস্যার কারণ ও মুক্তির উপায়

আসসালামু আলাইকুম আবারো স্বাগতম জানাচ্ছি  "সুবহানাল্লাহ হোমিও ক্লিনিকের" নতুন একটি ব্লগপোস্টে। আজকের ব্লগে জানবো উঁকুনের সমস্যা কেন হয় ও এটি থেকে মুক্তির উপায়।

উঁকুনের সমস্যার প্রধান কিছু কারণ

সরাসরি সংস্পর্শ: উঁকুন এক ব্যক্তি থেকে অন্য ব্যক্তির মাথার চুলের সংস্পর্শে এসে ছড়াতে পারে। উদাহরণস্বরূপ, দুইজন ব্যক্তি যদি কাছাকাছি বসে থাকে বা খেলে থাকে, তাহলে একটি ব্যক্তির মাথার চুল থেকে উঁকুন অন্য ব্যক্তির মাথায় ছড়িয়ে পড়তে পারে।

অবজেক্ট শেয়ার করা: উঁকুন মাথার চুলের বাইরেও বেঁচে থাকতে পারে। তাই, উঁকুন আক্রান্ত ব্যক্তির ব্যবহৃত হ্যাট, বেল্ট, ব্রাশ, বা অন্যান্য জিনিস শেয়ার করলে সেগুলো থেকেও উঁকুন ছড়িয়ে পড়তে পারে।

পরিবেশগত কারণ: উঁকুন গরম এবং আর্দ্র পরিবেশে ভালোভাবে বেঁচে থাকে। তাই, গরম এবং আর্দ্র আবহাওয়ায় উঁকুনের সমস্যা বেশি দেখা যায়।

স্বাস্থ্যগত কারণ: কিছু স্বাস্থ্যগত সমস্যার কারণে উঁকুন সংক্রমণের ঝুঁকি বেড়ে যেতে পারে। যেমন, অপুষ্টি, রক্তাল্পতা, এবং মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যা।

উঁকুনের সমস্যা দূর করার উপায় 

উঁকুন মারার ওষুধ ব্যবহার করুন: উঁকুন মারার জন্য বিভিন্ন ধরনের ওষুধ পাওয়া যায়। এই ওষুধগুলো সাধারণত চুলের শ্যাম্পু বা লোশন আকারে পাওয়া যায়। ওষুধটি ব্যবহারের নির্দেশাবলী অনুসরণ করে চুলে লাগান এবং নির্দিষ্ট সময় পর চুল ধুয়ে ফেলুন।

উঁকুন এবং ডিম দূর করুন: উঁকুন মারার ওষুধ ব্যবহারের পরও, চুলে উঁকুন এবং ডিম থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য কিছু পদক্ষেপ নেওয়া যেতে পারে। এর মধ্যে রয়েছে, চুল চিরুনি দিয়ে আঁচড়ানো: একটি পাতলা দাঁতের চিরুনি দিয়ে চুল আঁচড়ানোর মাধ্যমে উঁকুন এবং ডিম দূর করা যেতে পারে।

চুলে অ্যাসিড বা তেল লাগানো: অ্যাসিড বা তেল উঁকুন এবং ডিমকে মেরে ফেলতে সাহায্য করতে পারে। এজন্য চুলে ভিনেগার, লেবুর রস, বা তেল লাগানোর পর কিছুক্ষণ অপেক্ষা করে চুল ধুয়ে ফেলুন।

সবার চুল পরীক্ষা করুন: উঁকুন শুধুমাত্র আক্রান্ত ব্যক্তির মাথায়ই সীমাবদ্ধ থাকে না। তাই, আক্রান্ত ব্যক্তির পরিবারের সদস্য এবং ঘনিষ্ঠ বন্ধুদেরও চুল পরীক্ষা করা প্রয়োজন।

আশা করছি আপনার উঁকুনের সমস্যার সমাধান হবে। যদি এতেও কোনো কাজ না করে তবে আপনার নিকটস্থ ডাক্তারের সঙ্গে যোগাযোগ করুন। অথবা আজই দেশসেরা যেকোনো একটি ডাক্তারের সাথে অডিও বা ভিডিও কলে কথা বলে ফ্রি চিকিৎসার পরামর্শের পাশাপাশি ওষুধ হোমডেলেভারী নিন সারা দেশে। অ্যাপয়েনমেন্ট নিতে ক্লিক করুন |

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url