চোঁখের নিচে কালো দাগ হলে কি করবেন?

আজকাল প্রায় কমবেশি সবার চোখের নিচেই দেখা যায় কালো দাগ পড়েছে। অনেকে অনেক কথা বললেও এর সঠিক বেক্ষা দিতে পারেননা। তবে আজকের ব্লগে আমরা জানবো কেন চোখের নিচে কালো দাগ পরে এবং এর থেকে মুক্তির উপায়।

চোঁখের নিচে কালো দাগ হলে কি করবেন?


চোখের নিচে কালো দাগের বেশ কয়েকটি কারণ রয়েছে। কিছু সাধারণ কারণ হল:

অনিদ্রা: যখন আপনি পর্যাপ্ত ঘুম না পান, তখন আপনার চোখের নিচের ত্বক ফুলে যেতে পারে এবং কালো দাগ দেখা দিতে পারে। ঘুমের অভাব চোখের নিচের রক্তনালীগুলিকে প্রসারিত করতে পারে, যা কালো দাগের দিকে পরিচালিত করতে পারে।

অতিরিক্ত ক্লান্তি: দীর্ঘক্ষণ ধরে ঘুম না হলে বা কাজের চাপে অতিরিক্ত ক্লান্ত হয়ে পড়লে চোখের নিচে কালো দাগ দেখা দিতে পারে। ক্লান্তি চোখের নিচের ত্বকের রক্ত ​​সঞ্চালন কমাতে পারে, যা কালো দাগের দিকে পরিচালিত করতে পারে।

অ্যালকোহল এবং ক্যাফিন গ্রহণ: অ্যালকোহল এবং ক্যাফিন রক্তনালীগুলিকে প্রসারিত করতে পারে, যার ফলে চোখের নিচের ত্বক ফুলে যেতে পারে এবং কালো দাগ দেখা দিতে পারে। অ্যালকোহল এবং ক্যাফিন উভয়ই ত্বকের কোলাজেনকেও ক্ষতি করতে পারে, যা ত্বকের স্থিতিস্থাপকতা হ্রাস করতে পারে এবং কালো দাগ দেখা দিতে পারে।

অতিরিক্ত রোদ থেকে প্রভাবিত হওয়া: অতিরিক্ত রোদ থেকে চোখের নিচের ত্বক ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে, যার ফলে কালো দাগ দেখা দিতে পারে। সূর্যের অতিবেগুনী রশ্মি ত্বকের কোলাজেনকে ক্ষতি করতে পারে, যা ত্বকের স্থিতিস্থাপকতা হ্রাস করতে পারে এবং কালো দাগ দেখা দিতে পারে।

অ্যালজি বা অ্যালার্জি: অ্যালার্জি বা অ্যালার্জি চোখের নিচের ত্বক ফুলে যেতে পারে, যার ফলে কালো দাগ দেখা দিতে পারে। অ্যালার্জি চোখের নিচের রক্তনালীগুলিকে প্রসারিত করতে পারে, যা কালো দাগের দিকে পরিচালিত করতে পারে।

ত্বকের বয়স বৃদ্ধি: বয়স বাড়ার সাথে সাথে চোখের নিচের ত্বক পাতলা হয়ে যায়, যার ফলে রক্তনালীগুলি আরও দৃশ্যমান হয়ে ওঠে এবং কালো দাগ দেখা দিতে পারে।

চোখের নিচে কালো দাগ দূর করার জন্য কিছু ঘরোয়া প্রতিকার হল:

১.ঠান্ডা কম্প্রেস: ঠান্ডা কম্প্রেস চোখের নিচের ফোলাভাব কমাতে সাহায্য করতে পারে। একটি ঠান্ডা তোয়ালে বা টি ব্যাগ নিন এবং এটি 5-10 মিনিটের জন্য চোখের নিচে রাখুন।

২.ভিটামিন সি এবং ই সমৃদ্ধ খাবার খান: ভিটামিন সি এবং ই ত্বকের কোলাজেন উৎপাদনকে উদ্দীপিত করতে সাহায্য করে, যা ত্বকের স্থিতিস্থাপকতা বাড়াতে পারে এবং কালো দাগ কমাতে সাহায্য করতে পারে। ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবারের মধ্যে রয়েছে লেবু, কমলা, ব্রোকলি এবং গোলাপী টমেটো। ভিটামিন ই সমৃদ্ধ খাবারের মধ্যে রয়েছে অ্যাভোকাডো, কলা এবং বাদাম।

৩.হাইড্রেটেড থাকুন: পর্যাপ্ত পানি পান করলে ত্বক হাইড্রেটেড থাকবে এবং কালো দাগ কমতে সাহায্য করতে পারে।

৪.নিয়মিত ব্যায়াম করুন: নিয়মিত ব্যায়াম রক্ত ​​সঞ্চালন বাড়াতে সাহায্য করে, যা ত্বকের স্বাস্থ্যের উন্নতি করতে পারে এবং কালো দাগ কমাতে সাহায্য করতে পারে।

যদি আপনার সমস্যাটি অতিরিক্ত দেখা যাই তবে দ্রুতই একজন ডাক্তারের পরামর্শ গ্রহণ করুন। ফোন কলের মাদ্ধমে একজন ডাক্তারের সাথে সরাসরি কথা বলতে এখানে ক্লিক করুন

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url